আমি তানভির জুনায়েদ, একজন ইউআই / ইউএক্স ইঞ্জিনিয়ার
আমি যেভাবে কাজ করি

Shares

নাম এবং পেশা

তানভির জুনায়েদ। Houzz Inc এ ইউআই/ইউএক্স ইঞ্জিনিয়ার।

কবে কখন কিভাবে আপনি ডিজাইনের জগতে আসেন ? আপনি কি ছোট বেলা থেকেই এমন সৃজনশীল ছিলেন বা নিদিষ্ট একটি সময় পার হবার পরে এমন হয়েছেন ?

ছোটবেলা থেকেই আমার আর্ট করার শখ ছিল কিন্তু তখন একবারও ভাবিনি যে ভবিষ্যতে এটিই আমার প্রফেশন হবে। এটা এমন না যে আমি খুব ভাল আর্ট করতাম কিন্তু  আমি সবসময় আমার এবিলিটি এবং তথাকথিত নিয়ম অতিক্রম করার চেষ্টা করতাম। শুধু পরীক্ষা করার জন্য অস্বাভাবিক উপায়ে অনেক কিছু  করার চেষ্টা করেছি। হ্যাঁ! অনেকবার ফেল করেছি কিন্তু কখনো থেমে যায়নি নিজের এক্সপেরিমেন্ট থেকে। ২০০৬ সালের দিকে আমি ফটোশপ সম্বন্ধে প্রথম ধারণা পাই এবং সেটি নিয়ে টুকটাক কাজ করতে শুরু করি। তবে কাজ বলতে তেমন কোন কাজ না। জাস্ট টুকটাক ফটো এডিট করা এই। তবে আমি এটা খুব এঞ্জয় করতাম । একসময় আমি উপলব্দি করি এই চমৎকার অ্যাপ্লিকেশান ফটোশপ দিয়ে আমারপক্ষে ফটো এডিটের থেকে আরও ভাল কিছু করা সম্ভব। আরও ক্রেটিভ কিছু। শুরু করি ফটোশপ ভাল করে শিখার এবং তাদিয়ে সুন্দর, মজার কিছু করার। কিন্তু তখনও ভাবিনি এটাকেই আমি প্রফেশন হিসেবে বেছে নিব। ধীরে ধীরে উপলব্দি করলাম ডিজাইন করতেই আমার সবচেয়ে ভাল লাগে আর ক্যারিয়ার হিসেবে এটি যথেষ্ট স্মার্ট পেশা। তবে সমস্যা হল তখনকার সময় আমি এমন একজনও খুঁজে পাচ্ছিলাম না যে আমাকে ফ্রীলান্সিং করার ডিরেকশন দিবে। আমার কোনও ফ্রীলান্সের সাথে পরিচয় ছিলনা যিনি আমার প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবে। পরবর্তীতে আমি হতাশ না হয়ে নিজে নিজে অনলাইনে রিসার্চ শুরু করি এবং ২০০৮ সালের দিকে আমি প্রফেশনালি ফ্রিলান্সিং শুরু করি।

কোথায় থেকে আপনি প্রতিদিন ডিজাইন করার উৎসাহ পান ?

“Dribbble” আমার প্রতিদিনের ইন্সপিরেশনের সোর্স। আরও কিছু সাইট হল  Pinterest,  awwwards, siteinspire, pttrns ইত্যাদি। আমার দিনের একটি বড় অংশ ব্যয় হয় ইন্সপিরেশনের জন্য ওয়েব ব্রাউজিং এ।

dribbble-ball awwwards_02pttrns@2x-0373f54b7e759c8cd5370e0f9b230f05site-inspire unnamed

ডিজাইনের ক্ষেত্রে প্রয়োজন পরে এমন টুলস বা সফটওয়্যারের নাম বলুন যেটি ছাড়া আপনার চলা প্রায় অসম্ভব এবং কেন ?

হার্ডওয়্যারঃ হার্ডওয়্যারের কথা বলতে গেলে প্রথমেই বলব আমার Macbook Pro retina এবং ২৭”  thunderbolt display । পাশাপাশি আমার আইফোন,আইপ্যাড, অ্যান্ড্রয়েড গেজেট যেমন নেক্সাস ইত্যাদি আছে ডিজাইন মিরররিং এবং টেস্টিং এর জন্য।

সফটওয়্যারঃ আর সফটওয়্যারের কথা বলতে গেলে বলবো, কিছুদিন ধরে আমি নতুন একটি টুলসের মাধ্যমে কাজ শুরু করেছি সেটি হল স্কেচ। তবে আমি ফটোশপও নিয়মিত ব্যবহার করি। আর ব্রাউজার হিসেবে গুগল ক্রমের কথা না বললেই নয়।

আপনার পছন্দের ডিজাইনার কে, ঠিক কি কারনে আপনি তাকে এত পছন্দ করেন ?

আমার একাধিক পছন্দের ডিজাইনার আছে। এদের মধ্যে কিরিম সুয়ার, টিম ভ্যান ডেমি, বিল এস কেনি এনারা আমার অন্যতম পছন্দের ডিজাইনার। আমার সবসময় এদের করা ডিজাইন এবং এন্ড প্রোডাক্ট ভাল লাগে।

কিরিম সুয়ার

কিরিম সুয়ার

টিম ভ্যান ডেমি

টিম ভ্যান ডেমি

বিল এস কেনি

বিল এস কেনি

 

আপনি যখন কোন ডিজাইন করার জন্য মনস্থির করেন তখন ডিজাইনটি করার আগে স্কেচ বা ছবি একে নেন নাকি সরাসরি কম্পিউটারে ডিজাইন করা শুরু করে দেন ?

আমার সকল প্রোজেক্ট শুরু হয় রিসার্চ ফেইজ থেকে। প্রোজেক্টের শুরুতেই অনেক সময় ব্যয় করি প্রোজেক্টে কি প্রব্লেম শলভ করতে হবে তা বুঝার জন্য। এরপর আমি অনেকগুলু স্কেচ করি এবং আমার কাছে যেটি সবচেয়ে ভাল মনে হই সেটি দিয়ে ফটোশপ অথবা স্কেচ এ ডিজাইন শুরু করি। আমি সবসময় একটি উক্তি মনে রাখি:

The best way to get a good idea is to have a lot of ideas

আমার ডিজাইনের অন্যতম একটি পার্ট বা অধ্যায় হল ইউজারের মতামত গ্রহন করা। আমি সবসময় চেষ্টা করি যে আমি যেটা ডিজাইন করছি সেটা যেন আমার টার্গেটেড ইউজারের কাছে সহজভাবে গ্রহণযোগ্য হয়। সময় সময় আমি আমার ডিজাইনের কিছু নমুনা তৈরি করি “invisionapp” ব্যবহার করে এবং সেগুলো ইউজারদের দেখাই এবং তাঁরা যে মতামত দেয় সেটির ওপরে ভিত্তি করে ফাইনাল ডিজাইন তৈরি করি। উদাহরন সরূপ “houzz” এ এখন পর্যন্ত আমার করা সব থেকে বড় প্রোজেক্ট যেটি, সেটি করতে প্রায় ২০ টি ভার্সন তৈরি করেছিলাম এবং সেখান থেকে একটা ফাইনাল করি।

আপনার কাজের স্থানটি কেমন ?

সত্যি বলতে আমি মোটেও অগোছালো কাজের পরিবেশ পছন্দ করিনা হোক সেটা সাধারণ তবে পরিপাটি হতে হবে। কাজ করার জন্য আমার ডেস্কে একটা ম্যাকবুক প্রো রেটিনা আছে, সাথে ২৭ ইঞ্চি বড় মনিটর। কাজের শুবিধার জন্য বাড়তি ডিসপ্লেও আছে। তবে পরবর্তীতে আমি ভাবি যে এটি আসলে আমার কাজের জায়গাটি আরও জটিল করে ফেলছে। যেহেতু আমি বিভিন্ন ধরনের ডিভাইসের জন্য ডিজাইন করে থাকি, এজন্য আমার সংগ্রহে আইফোন ৬ প্লাস, আইপড,আইপ্যাড মিনি,আইপ্যাড এয়ার, নেক্সাস ফোন, এবং ট্যাবলেট আছে। আসলে এগুলো আমার জন্য খুব একটা জরুরি না তবে কাজের ক্ষেত্রে এগুলো থেকে বেশ সাহায্য পেয়ে থাকি।

কাজ করার সময় আপনি কোন ধরনের গান শুনতে পছন্দ করেন ?

এইটা পুরোপুরি নির্ভর করে আমার মন মানসিকতার ওপরে, যখন যেমন থাকি তখন তেমন গান শুনি। চেষ্টা করি হেডফোন ব্যবহার করে নিজের কানটা বন্ধ করে রাখতে যাতে আমার কাজের ভেতরে বাইরের কোন কিছু মনোযোগ না কাড়তে পারে। আমি মূলত পছন্দ করি “Sound of nature and soft music“। এটি আমার কাজের প্রতি মনোযোগ ধরে রাখতে বেশ সাহায্য করে।

প্রতিদিনের টু-ডু লিস্ট তৈরি করার জন্য কোন সফটওয়্যার/পন্থাটি আপনার কাছে সেরা মনে হয় ?

আমি “ওয়ান্ডার লিস্ট” ব্যবহার করতে পছন্দ করি। এটি একটি সিম্পল টু-ডু অ্যাপ। পাশাপাশি “Sticky Notes” ও ব্যবহার করি।

একজন বাংলাদেশি হিসেবে যানজট আমাদের নিত্য দিনের সঙ্গী। আপনি যানজটের সময়টাকে সদ্ব্যবহার করার জন্য কি করেন ? 

যখন আমি বাংলাদেশে ছিলাম, বেশিরভাগ সময় আমি ড্রাইভ করতাম। তাই সময়টাকে সদ্ব্যবহার করার মত কোনও উপায় ছিলনা। সবাই যেখানে ট্র্যাফিক জ্যামকে অপছন্দ করে আমার কিন্তু তেমন কিছু মনে হয় না। আমি এটি বেশ ইনজয় করি। রিক্সা, অটো, বা অন্য কোনকিছুর সাথে ধাক্কা না দিয়ে নিজের গাড়িকে কে পাশ কাটিয়ে গন্তব্যে পৌঁছনটা আমার কাছে বেশ এডভেঞ্চার মনে হয়। তবে হ্যাঁ আপনার কাছে যদি একটি স্মার্টফোন অথবা ল্যাপটপ থাকে তবে ডিজাইনের বইয়ের PDF কপি পড়তে পারেন। এতে যানজট আর কোন ব্যাপারই মনে হবে না।

দিনের ঠিক কোন সময়ে আপনি খুব মনোযোগ দিয়ে কাজ করতে পারেন ?

এইটা অনেকটাই নির্ভর করে। যখন আমি বাংলাদেশে ছিলাম তখন ১২ টা থেকে ৪ টা সবচেয়ে মনোযোগ দিয়ে কাজ করা হত। কিন্তু এখন আমি যেহেতু ফুলটাইম চাকরি করি সেক্ষেত্রে সকাল বেলা কাজের শুরু থেকে দুপুরের খাবারের বিরতি পর্যন্ত সব থেকে কার্যকরী মনে হয়।

আপনার দৈনিক ঘুমানোর সময়সূচি কেমন ?

সত্যি বলতে আমি আমার জীবনে কখনোই কোন নিয়ম কানুন মেনে চলিনি তবে এটি কিন্তু আমার কাছে কোন গর্বের বিষয় না। সাধারণত আমি রাত ১টা থেকে ৩টার মধ্যে ঘুমিয়ে পরি আর সকাল বেলা ৮.৩০ দিকে উঠে পরি।

প্রতিদিন আপনার কাছে এমন কি মনে হয়, যে আপনি সবার থেকে আলাদা ?

নিজেকে এবং আমার আশেপাশের মানুষকে উৎসাহিত করা।

আপনার কাছে গুণীজনদের কাছ থেকে পাওয়া এখন পর্যন্ত সেরা উপদেশ কোনটি মনে হয়েছে ?

এটি আমার জন্য বলা সত্যি একটু কষ্টসাধ্য। কারন আমি আমার জীবনে এখন পর্যন্ত অনেক অনেক উপদেশ মূলক কথা শুনেছি তবে যেটির কথা না বললেই নয় সেটি হল:

Don’t afraid of breaking the rules and failure

আপনার পরামর্শ কি, একজন ইউআই/ইউএক্স ইঞ্জিনিয়ার কে কোন বই অবশ্যই পড়া উচিৎ ?

  1. Don’t make me think” by Steve Krug ইউআই/ইউএক্সের জন্য গোল্ডেন বই।
  2. 100 things every designer needs to know about people
  3. About Face 3
  4. Designing the obvious
  5. Web form design

যেকোনো জটিল পরিস্থিতিতে নিজের কাজ করার মন মানসিকতা ঠিক রাখার জন্য আপনি কি করেন ?

জটিল পরিস্থিতে আমি ভেঙ্গে না পরে কনফিডেন্টের মাধ্যমে সলভ করি।

আপনি কিভাবে “User Interface” এবং “User Experience” পার্থক্য করেন ?

এটা একটা ভালো প্রশ্ন। আমি একটি উদাহরণের মাধ্যমে এটি ডেস্ক্রাইব করতে চেষ্টা করবঃ UX হচ্ছে মানুষের পুরো শরীর আর UI হচ্ছে তার বাহ্যিক চেহারা। UX কভার করে যে একটি নিদিষ্ট প্রোডাক্ট কিভাবে কাজ করবে, দেখতে এবং ব্যবহার করতে কেমন অনুভুতি হবে সেই বিষয়টি অন্যথায় UI ওই প্রোডাক্টের ভিজুয়াল পার্ট যেটা ইউজার দেখে থাকে।

আপনার ইউআই/ইউএক্স ইঞ্জিনিয়ার জীবনে এখন পর্যন্ত সব থেকে বড় অর্জন কোনটি ?

আমার কাছে মনে হয় মানুষের সমস্যা সমাধানের মতো বড় কোন অর্জন হতে পারে না। আপনি যখন এয়ারপোর্ট, বাসস্টপ অথবা অন্য কোথাও দেখবেন আপনার তৈরি করা অ্যাপস ব্যবহার করে মানুষ তাদের দৈনন্দিন সমস্যা সমাধান করছে তখন সেটি হবে আপনার জন্য একটি বড় পাওয়া। আমার অনেক বন্ধু আমার ডিজাইন করা অ্যাপ্লিকেশান ব্যবহার করে এবং বলে কত সহজভাবে অ্যাপ্লিকেশানটি ব্যবহার করে এবং আমাকে ফিডব্যাক দেয়। যেটির কথা না বললেই না সেটি হল আমাদের “houzz app”। এখন পর্যন্ত এটি কয়েক মিলিওন বার ডাউনলোড হয়েছে এবং এভারেজ ৫ স্টার ফিডব্যাক পেয়েছি। অ্যাপল কয়েকবার ফিচার করেছে আমাদের অ্যাপ্লিকেশানটি যেটি সত্যি আমাদের জন্য অনেক বড় একটি অর্জন। এটি হল অ্যাপের লিংক যদি কেও ইন্টারেস্টেড হয়ে থাকেন তার জন্য।

সবারই একটি স্বপ্ন বা ইছা থাকে ভবিষ্যতে একটি প্রতিষ্ঠান বা প্রোজেক্ট নিয়ে কাজ করার, আপনারও যদি এমন কোন স্বপ্ন বা ইচ্ছা থেকে থাকে তবে সেটি কি নিয়ে ?

আমি মনেকরি বর্তমানে আমি “houzz app” এ  যে প্রোজেক্টটি করছি তা আমার স্বপ্নের প্রোজেক্ট কারণ এটা আমার জীবনের সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং প্রোজেক্ট এবং একটু ইউনিক ফীচার। অনেকেই বড় বড় কোম্পানিতে জয়েন করার জন্য খুব বেশি আগ্রহ প্রকাশ করে যেমন, গুগল বা ফেসবুক ইত্যাদি। কিন্তু আমার বাক্তিগতভাবে স্টার্টআপ কোম্পানিতেই কাজ করতে ভালো লাগে। আমি চাই আমার বুদ্ধিমত্তা দিয়ে প্রতিষ্ঠানকে আরও বহুদুর এগিয়ে নিয়ে যেতে।

আপনি যদি অ্যাপলের জন্য কোন অ্যাপস ডিজাইন করেন তবে সেটি কি হবে এবং কেন ?

মনেহয় সেটি হবে অ্যাপলের ডিফল্ট “ফোন অ্যাপ” রি-ডিজাইন কারন আপনি যখন আপনার ফোন নাম্বার পেস্ট করবেন তখন আর এডিট করার মতো সুযোগ থাকে না। এটি আমার কাছে খুব বিরক্তকর মনে হয়। smartphone

ডেভেলপারদের সাথে আপনার সম্পর্ক কেমন ? আপনি কি তাদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করেন নাকি প্রতিদ্বন্দ্বী ভেবে সব সময় কাজ করেন ?

এইটা সত্যি নির্ভর করে সে কতটুকু দক্ষ সেটির ওপরে। সে যদি আমার মতো “perfectionist” কোন ব্যক্তি হয়ে থাকে তবে আমি হব তার বেষ্ট ফ্রেন্ড (হা ! হা!) । অথবা ডেভেলপমেন্ট একেবারে পারফেক্ট না হওয়া পর্যন্ত আমি তাকে ফিডব্যাক দিয়ে থাকি।

No hard feelings – pure and simple

“Dribbble” এর ব্যাপার এ আপনার কি মতামত ? এটা কি ভাল মাধ্যম জব পাওয়ার জন্য? আপনার মতে কোনটি সবচেয়ে ভাল মাধ্যম ডিজাইনারদের জন্য জব পাওয়ার।

“Dribbble” অন্যতম একটি পন্থা ভালো জব পাবার জন্য। আমি যখন বাংলাদেশে ছিলাম, প্রায় ৯৫% জব Dribbble থেকে পেতাম। আর প্রায় প্রতি সপ্তাহে ৭-১০ নতুন জবের ইনকুইরি আসত। আমি শুনেছি “Behance” ও অনেক ভাল। যদিও আমার অ্যাক্টিভ কোন অ্যাকাউন্ট নেই “Behance” এ। কিন্তু ফুলটাইম জব এর জন্য আমি মনে করি “Linkedin” সবচেয়ে ভাল ।

যারা ভবিষ্যতের ইউআই/ইউএক্স ইঞ্জিনিয়ার হতে যাচ্ছে তাদেরকে আরও উৎসাহিত করতে আপনার উপদেশ কি হবে ? ঠিক কিভাবে কাজ করলে তারাও একদিন আপনার মতো হতে পারবে ? 

হ্যাঁ অবশ্যই, আমি শুধু এতোটুকুই বলবো যে অনুশীলন চালিয়ে যেতে যতক্ষণ না পর্যন্ত সফলতা আপনার হাতে ধরা দিচ্ছে ততক্ষণ। সবসময় চেষ্টা করুন নতুন এবং সবার থেকে আলাদা কিছু তৈরি করার। কখনো হতাশ হবেন না।যদি একবার মনে করবেন যে আপনি এটি করবেন, তবে মনে রাখবেন আপনাকে দিয়েই হবে। কাজের ফাকে ফাকে একটু অবসরে যাবার চেষ্টা করুন এতে করে আপনার কাজ করার অনুপ্রেরণা আবার নতুন করে ফিরে আসবে। নিয়মিত অন্যান্যদের ভাল ডিজাইনারদের কাজ দেখার চেষ্টা করুন।

শূন্যস্থান পুরন করুন, আমি এই একই প্রশ্নের উত্তর গুলো  ______  কাছ থেকে শুনতে পছন্দ করব।

ওয়াহিদ বিন আহসান

Shares